যুদ্ধবিরতির পর সংহিসতা বাড়িয়েছে তালেবান : কাবুল

Posted on

“প্রত্যাশিত শান্তি চুক্তির আগে বিদ্রোহীদের উপর হামলার অভিযোগ তুলে তালেবানরা গত সপ্তাহে ৪০০ জনের ও বেশি আফগান নিরাপত্তা কর্মীকে হত্যা বা আহত করেছে।” বলেন আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে তিন দিনের যুদ্ধ বিরতিতে আফগানিস্তানের বেশিরভাগ স্থানে সহিংসতা ছড়িয়ে পরে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তারেক আরিয়ান বলেন, ” গত এক সপ্তাহে তালেবানরা আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে ২২২ টি হামলা চালিয়েছে এর ফলে ৪২২ জন নিহত ও আহত হয়েছে।”

আফগান সরকারের উপর মানসিক চাপ তৈরী করার জন্য তাকেবানরা ধর্মীয় নেতাদের নিশানা করছে বলে আরিয়ান দাবি করেন এবং তিনি আরো বলেন, এই মাসে কাবুলের মসজিদে দুই জন নেতা নিহত হয়েছেন।

পাশাপাশি যুদ্ধবিরতির পর প্রাথমিকভাবে সামগ্রিক সহিংসতা কমে যাওয়ার সংবাদ জানানোর পর জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের মুখপাত্র জাভেদ ফয়সাল বলেন, ” তালেবানরা কমেনি বরং সারাদেশে তাদের আক্রমণ বৃদ্ধি করেছে।”

কাউন্সিল আরো অভিযোগ করেছে যে বিদ্রোহীরা গত দুই সপ্তাহে ৮৯ জন বেসামরিক নাগরিককে হত্যা করেছে এবং ১৫০ জন আহত হয়েছে।

তালেবান্রা অভিযোগটি প্রত্যাখান করেছে।

এদিকে প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি একটি তালেবান বন্দীর মুক্তি সম্পন্ন করার অঙ্গীকার করেছেন যা প্রায় দুই দশকের যুদ্ধের অবসানের লক্ষ্যে বিদ্রোহীদের সাথে আলোচনা শুরু করার একটি গুরুত্বপূর্ণ শর্ত।

কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যে প্রায় ৩,০০০ তালেবান বন্দীদের মুক্তি দিয়েছেন এবং যুক্তরাষ্ট্রের আয়াথে বিদ্রোহীদের চুক্তি অনুযায়ী আরো ২,০০০ জনকে মুক্ত করার পরিকল্পনা করেছে।

তালেবান রাজনৈতিক মুখপাত্র সুহেল শাহীন বলেন,” আমাদের অবস্থান হচ্ছে যে আমাদের অবশিষ্ট বন্দীদের আন্তঃআফগান সমঝোতা শুরুর আগেই ছেড়ে দেওয়া উচিত।

0 0 votes
Article Rating
Subscribe
Notify of
guest
0 Comments
Inline Feedbacks
View all comments