সম্প্রতি করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার প্রতি সজাগ দৃষ্টি রাখতে দেশের নাগরিকদের জন্য স্মার্টফোনে “করোনা ট্রেসার বিডি” অ্যাপটি চালু করেন বাংলাদেশ সরকার।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক গত ৪ জুন বৃহস্পতিবার অনলাইনে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অ্যাপটি আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মোচন করেন৷

স্মার্টফোনে এই অ্যাপটি ইন্সটল করে করোনা সতর্কতা আরও বেশি জোরদার করা যাবে বলে জানা যায়। অ্যাপটি ইন্সটল করে লোকেশন দিয়ে অন করে দিলে স্মার্টফোনের ১ মিটারের মধ্যে করোনা আক্রান্ত কেউ থাকলে তথ্য পৌঁছে যাবে কেন্দ্রীয় সার্ভারে। তবে সেক্ষেত্রে উভয়ের কাছেই অ্যাপটি থাকতে হবে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সেই তথ্য বিশ্লেষণ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

কিন্তু অ্যাপটি সম্পর্কে এখনো বেশিরভাগ মানুষই অজানা। এখনো পর্যন্ত বাংলাদেশে মাত্র ৫ লাখ মানুষ এটি ডাউনলোড করেছে। তাই যত দ্রুত সম্ভব এর সম্পর্কে মানুষকে জানিয়ে সচেতনতা বাড়াতে হবে। যথাযথ প্রচার চালাতে হবে “করোনা ট্রেসার বিডি” নিয়ে। এটি এখনো পর্যন্ত শুধু স্মার্টফোনের জন্য। তবে খুব দ্রুত তা সব মোবাইলে চালু করার ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

জুনাইদ আহমেদ পলক জানান যে সরকার ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি সেক্টর যেমন: কৃষি, শিক্ষা, স্বাস্থ্য এবং জরুরি খাদ্য সরবরাহ খাতে নজর দিয়েছেন। সেক্ষেত্রে ‘করোনা ট্রেসার বিডি’ কোভিড ১৯ এর বিরুদ্ধে একটি গুরুত্বপূর্ণ সমাধান হিসেবে কাজ করবে। তিনি দেশের জনগণকে এই অ্যাপটি ব্যবহারের মাধ্যমে করোনার বিরুদ্ধে এগিয়ে আসতে আহ্বান জানিয়েছেন।

দুজন ব্যবহারকারী ১ মিটারের মধ্যে আসলে স্মার্টফোন দুটির মধ্যে এক ‘ডিজিটাল হ্যান্ডশেক’ হবে। এতে তথ্য পৌঁছে যাবে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে। এর ফলে করোনা শনাক্ত করা আরও গতিশীল এবং সহজ হবে।

অ্যাপটি ডাউনলোড করা যাবে গুগল থেকে এবং প্লে স্টোর থেকে।

https://play.google.com/store/apps/details?id=com.shohoz.ত্রাচের

 

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে