যতদিন না ভ্যাকসিন আসবে ততদিন ফিলিপাইনের দশ মিলিয়ন শিশুদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। অফিসিয়ালি বলা হয়েছে, ” তাদের পাঠ হয়ত টেলিভিশিনে সম্প্রচার হতে পারে।”

ফ্রান্স, দক্ষিণ কোরিয়ার মত দেশ কোভিড নিয়ন্ত্রণ করে এখন ক্লাসরুমে ক্লাস নেয়া শুরু করলেও, ফিলিপাইন কর্তৃপক্ষ এত তাড়াতাড়ি শুরু করবে না।
প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তে গতমাসে বলে, ” শিক্ষার্থীদের দরকার ঘরে থেকে, কোভিড সংক্রমণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা”

” আমরা প্রেসিডেন্টের নির্দেশ মেনে চলবো যতক্ষণ না কোনো টিকা পাওয়া যায়” শিক্ষা সচিব লিওনর ব্রিওনেস এক বিবৃতিতে বলেন।

তিনি আরো বলেন ” পাঠদান আগস্ট পর্যন্ত স্থগিত থাকবে এবং শিক্ষক যখন প্রয়োজন মনে করবে তখন ইন্টারনেট অথবা টেলিভিশন সম্প্রচারের মাধ্যমে পাঠ নেয়া যেতে পারে।”

ফিলিপাইনের অনলাইন ক্লাসের প্রধান অন্তরায় হচ্ছে দরিদ্রতা। লক্ষাধিক মানুষ ফিলিপাইনে দারিদ্র্য।

এদিকে বিজ্ঞানীরা কোভিড নিরাময়ের জন্য টিকা তৈরী করছেন কিন্তু বলা মুশকিল কবে নাগাদ টিকা তার কার্যকরতা প্রমাণ করবে ও বৃহৎ ভাবে সকল দেশের কাছে পৌছাবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে